তৈলাক্ত চুলে কন্ডিশনার নাকি শ্যাম্পু? | Bahumat

তৈলাক্ত চুলে কন্ডিশনার নাকি শ্যাম্পু?

শ্যাম্পু

সারাদিন বাইরের ধুলো ময়লার মধ্যে চুলের যত্নটা ভালোভাবে হওয়া চাই। চুল পরিষ্কার করার জন্য গোসলের সময় শ্যাম্পু ও কন্ডিশনারের ব্যবহার তার মধ্যে একটি।সাধারণত চুল পরিষ্কার করার জন্য আমরা আগে শ্যাম্পু এবং পরে কন্ডিশনার ব্যবহার করে থাকি। কখনো কন্ডিশনার আগে ব্যবহার করার কথা ভেবে দেখেছেন কী? শুনতে অন্যরকম লাগলেও সত্যি এই যে, শ্যাম্পুর আগে কন্ডিশনার ব্যবহার করা যায়।আসুন জেনে নিই কীভাবে এবং তার উপকারীতা কী কী।আপনার চুল যদি হয়ে থাকে তৈলাক্ত অথবা বেশি চিকন তাহলে আপনি এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে পারেন। প্রথমে চুলের নিচের অংশ ভালোভাবে ভিজিয়ে নিন। এরপর ধুয়ে নেওয়া চুলের অংশে আলতোভাবে কন্ডিশনার লাগান। শুধুমাত্র চুলের নিচের অংশে অর্থাৎ চুলের আগায় কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। এই পদ্ধতি অনুসরণের ক্ষেত্রে কখনোই চুলের গোড়ায় কন্ডিশনার লাগাবেন না। কন্ডিশনার লাগানো অবস্থায় দুই থেকে পাঁচ মিনিট রাখুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। চুল ধোয়ার এই পদ্ধতিকে বলা হয় বিপরীত উপায়ে চুল ধোয়া।পূর্বের পদ্ধতি অনুযায়ী আমরা আগে শ্যাম্পু ব্যবহার করতাম তারপর সম্পূর্ণ চুলে কন্ডিশনার লাগিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতাম। এভাবে চুল পরিষ্কার করলে চুলের তৈলাক্তভাব সম্পূর্ণরূপে যায় না। চুল ধোয়ার কয়েক ঘণ্টা অবধি চুলের তৈলাক্ত ভাব থেকে যায়। সে ক্ষেত্রে তৈলাক্ত চুলের জন্য বিপরীত উপায়ে চুল পরিষ্কার করার পদ্ধতিটি অনুসরণ করা যেতে পারে।

 উপকারীতা
• আপনার চুল ভলিউম হয়ে উঠবে।
• চুল পর্যাপ্ত পরিমাণ হাইড্রেশন পাবে। চুল বিশেষজ্ঞগণ মনে করেন সাধারণত গরমের সময় চুল পরিষ্কার করার এই বিপরীত পদ্ধতিটি অনুসরণ করা উচিত।
• চুল পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টি পাবে। কারণ এই পদ্ধতি অনুসরণের মাধ্যমে চুলের গভীর পর্যন্ত পুষ্টি পৌঁছে যায়। এতে চুল বৃদ্ধি পায় দ্রুত। সতর্কতাচুল ধোয়ার এই পদ্ধতিটি সব ধরনের চুলের জন্য নয়। আপনার চুল যদি হয় শুষ্ক অথবা আগাফাটা ধরনের তাহলে এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করবেন না। শুষ্ক বা আগাফাটা চুলে এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে না বরং আরো ক্ষতি হতে পারে। চুল পরিষ্কার করার বিপরীত পদ্ধতিটির জন্য সব ধরনের শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার উপযোগী নয়। তাই শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার কেনার ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্মন করুন। কেনার পূর্বে রিভার্স ওয়াসিং এর শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দেখে কিনুন।

Top